1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
কাপ্তাইয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপন লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত খুলনা মৎস্য অধিদপ্তরের মাসিক সমন্বয় সভা বেনাপোলে মদ গাঁজা ফেনসিডিলসহ আটক ৩ কাপ্তাইয়ে মাদক আস্থানা পুলিশ ভেঙ্গে দেওয়ায় মাদক সেবীর হামলায় আহত-২ কাপ্তাই বিউবো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছ ২২ জন, পাশের হার ৯৬.৫৯% আখাউড়ায় ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার এবার বৃষ্টিপাত কম হওয়ার দরুণ কাপ্তাই লেকে পানি স্বল্পতায় বিদ্যুৎ উৎপাদন সর্বনিন্মে সাতক্ষীরার শীর্ষ চোরাকারবারী ৩০ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক কাপ্তাই আপস্ট্রিম জেটিঘাট কচুরিপানা যানজট অপসরণে ৪০ দিনের কর্মসূচি উদ্বোধন কাপ্তাই উপজেলা বিএনপির ৩ নেতাকে মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তারের নিন্দা ও প্রতিবাদ

যুক্তি উপস্থাপন চলছে খালেদার উপস্থিতিতে

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০১৮

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে আদালতে উপস্থিত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার সকাল ১১টা ৩৭ মিনিটে রাজধানীর বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ ড. মো. আখতারুজ্জামানের আদালতে হাজির হন ‍তিনি। দুর্নীতির মামলা দুটিতে টানা তিনদিন (মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার) আদালতে উপস্থিত হয়ে যুক্তিতর্ক উত্থাপনের দিন ধার্য রয়েছে।

এখন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন চলছে। খালেদার পক্ষে যুক্তিতর্ক উত্থাপন করছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও খালেদার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ।

এর আগে গত ১১ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার পরবর্তী যুক্তিতর্কের জন্য আজ থেকে আগামী তিন দিনের তারিখ ধার্য করা হয়।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০০৫ সালে কাকরাইলে সুরাইয়া খানমের কাছ থেকে ‘শহীদ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট’-এর নামে ৪২ কাঠা জমি কেনা হয়। কিন্তু জমির দামের চেয়ে অতিরিক্ত এক কোটি ২৪ লাখ ৯৩ হাজার টাকা জমির মালিককে দেওয়া হয়েছে বলে কাগজপত্রে দেখানো হয়, যার কোনো বৈধ উৎস ট্রাস্ট দেখাতে পারেনি। জমির মালিককে দেওয়া ওই অর্থ ছাড়াও ট্রাস্টের নামে মোট তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা অবৈধ লেনদেনের তথ্য পাওয়া গেছে।

২০১০ সালের ৮ আগস্ট জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের নামে তেজগাঁও থানায় দুর্নীতির অভিযোগে এ মামলা করেছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক হারুন-অর-রশিদ।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন—খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a