1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:২০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
আখাউড়ায় গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত ৫ আসামী গ্রেফতার। কাপ্তাইয়ে ১০ আর ই ব্যাটালিয়নের আয়োজনে শান্তিচুক্তির ২৫ বছর পূর্তি কেউ শান্তির নামে অশান্তি সৃষ্টি করলে এক বিন্দু ছাড় দেওয়া হবে না -জোন কমান্ডার কাপ্তাইয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপন লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত খুলনা মৎস্য অধিদপ্তরের মাসিক সমন্বয় সভা বেনাপোলে মদ গাঁজা ফেনসিডিলসহ আটক ৩ কাপ্তাইয়ে মাদক আস্থানা পুলিশ ভেঙ্গে দেওয়ায় মাদক সেবীর হামলায় আহত-২ কাপ্তাই বিউবো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছ ২২ জন, পাশের হার ৯৬.৫৯% আখাউড়ায় ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার এবার বৃষ্টিপাত কম হওয়ার দরুণ কাপ্তাই লেকে পানি স্বল্পতায় বিদ্যুৎ উৎপাদন সর্বনিন্মে

জয়নাবের হত্যাকারী গ্রেপ্তার হয়েছে: পাঞ্জাব মুখ্যমন্ত্রী

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৮

পাকিস্তানের কসুরে জয়নব আনসারি নামে ছয় বছরের যে কন্যা শিশুটির ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ড সম্প্রতি ব্যাপক আন্দোলনের ঝড় তুলেছে সেই হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে বলে দাবি করছে সেখানকার পুলিশ। খবর বিবিসির।

পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী একটি সংবাদ সম্মেলনে হত্যাকারী হিসেবে ২৪ বছর বয়সী এক ব্যক্তির নাম ঘোষণা করেন।

ঐ যুবককে সিরিয়াল কিলার হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে। পাকিস্তানের পুলিশ বলছে তারা ঘটনাস্থল থেকে সংগ্রহ করা ডিএনএ নমুনার সঙ্গে মিল খুঁজে পাওয়ার পরই তার ওপর ভিত্তি করে ঐ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছেন।

প্রায় ১২০০ মানুষের ডিএনএ পরীক্ষা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এক সংবাদ সম্মেলনে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ দাবি করেছেন, ইমরান আলি নামে গ্রেপ্তারকৃত ঐ যুবক ইতিমধ্যেই হত্যার ব্যাপারে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

জানুয়ারির শুরুর দিকের এই ঘটনার পর থেকেই হত্যাকারীকে ধরার ব্যাপারে ভীষণ চাপে ছিল পাঞ্জাবের পুলিশ।

গত দুই বছরে অন্তত ১২টি একই ধরনের ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে একই এলাকায়। এর আগে জানা গেছে এর মধ্যে ৬টি নিহত মেয়ের দেহে একই ব্যক্তির ডিএনএ পেয়েছেন তদন্তকারীরা।

গত ৪ জানুয়ারি কোরান শিক্ষার ক্লাসে যাবার পথে নিখোঁজ হয় জয়নব আনসারি।

কয়েক দিন পর তার মৃতদেহ পাওয়া যায় শহরের একটি আবর্জনা ফেলার জায়গায়।

বলা হয়, তাকে ধর্ষণের পর গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে।

ওই দিনের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে জয়নবকে শেষবার জীবিত অবস্থায় দেখা গেছে। তাতে দেখা যায় একজন অচেনা লোকের হাত ধরে জয়নব হেঁটে যাচ্ছে।

জয়নব আনসারির হত্যাকাণ্ড নাড়িয়ে দেয় পুরো পাকিস্তানকেই। এই ঘটনায় দাঙ্গা-সহিংসতায় দুজন নিহতও হয় দেশটিতে।

গত ফেব্রুয়ারিতে একই ধরনের অপর এক ঘটনায় মুদাচ্ছির নামের এক সন্দেহভাজন পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। এখন সে নির্দোষ ছিল কিনা সেটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

কেননা তার মৃত্যুর পরও জয়নবসহ একইভাবে আরো তিনটি মেয়ে খুন হয়েছে। একটি মেয়ে বেঁচে গেছে।

লাহোরে মুখ্যমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জয়নবের বাবা আমিন আনসারিও।

স্থানীয় একটি গণমাধ্যম হত্যাকারীকে তাদের পরিবারের পরিচিত বলে উল্লেখ করলেও আনসারি তা নাকচ করে দেন।

তাৎক্ষণিকভাবে দায়ী ব্যক্তি বা তার আইনজীবীর পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a