1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
কাপ্তাইয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা রেফায়েত উল্লাহ (৯০) রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন কাপ্তাইয়ে আগর বাগান মালিক সমিতির বার্ষিক সভা ও নতুন কমিটি গঠন আখাউড়ায় শিয়ালের মাংস বিক্রি,জীবিত শিয়াল উদ্ধার কাপ্তাইয়ে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত চন্দ্রঘোনা ইউপি নির্বাচন মনোনয়নপত্র জমা দিলেন আ’লীগ প্রার্থী মিলন কাপ্তাইয়ে অনুর্ধ্ব- ১৭ বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঝিকরগাছায় লেবু বাগান থেকে নারীর লাশ উদ্ধার চন্দ্রঘোনা ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন বিপ্লব মারমা আখাউড়া পৌর মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যানের সাময়িক ভূল বুঝাবুঝির অবসান কাপ্তাইয়ের নৃত্যানুষ্ঠান ” নুপুর নিক্কণ “

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় জরাজীর্ণ ভবনে পাঠদান

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় জরাজীর্ণ ভবনে পাঠদান, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ক্লাশ করছেন কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার শুয়াগ্রাম ইউনিয়নের ১০৯ নং কালারবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ২৫ বছরের পুরানো ভবনে ও ১৫ বছরের পুরানো ভাঙ্গাচুরা টিনসেড ঘরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ক্লাশ করছেন শিক্ষক ও কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীরা। ওই এলাকার ১২২জন ছেলে মেয়ে বর্তমানে স্কুলটিতে লেখাপড়া করছেন। বর্তমান সরকার প্রাথমিক শিক্ষার প্রতি অত্যন্ত গুরুত্ব আরোপ করেছেন। বিদ্যালয়টিতে ৫ জন শিক্ষক থাকার কথা থাকলেও বর্তমানে আছেন ৪ জন। বিদ্যালয়টি গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলার দক্ষিণ-পূর্ব সীমান্তবর্তী এলাকায়। অনেক কর্মকর্তাই বিভিন্ন সময় স্কুল ভবন নির্মানের আশ্বাস দিলেও আজ পর্যন্ত তা বাস্তবায়িত হয়নি।
তামিম খান, শাহিন খান, রিফাত খান, ফুলতুশি খানম, তাসলিমা খানম, লিনা খানম, সুমাইয়া খানম, হাফসা খানমসহ সকল ছাত্র-ছাত্রী সাংবাদিকদের বলেন, এই পুরাতন ভবনে ক্লাশ করতে আমাদের ভয় লাগে, একটি নতুন ভবন তৈরি হলে আমরা আনন্দেও সাথে লেখাপড়া করতে পারতাম।

ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে গেছে, টিনসেড ঘরটিও নড়বড়ে, যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ছাত্র ছাত্রীদের ক্লাশ করাতে হয়। মাঝে মধ্যে গাছ তলায়ও ক্লাশ করাই কথাগুলি আবেগের সাথে বলছিলেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক সামচুদ্দিন খান। তিনি আরো জানান, অচিরেই বিদ্যালয়টির অবকাঠামো মুলক উন্নয়নের জন্য স্থানীয় প্রশাসন সহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

এ বিষয়ে যোগযোগ করা হলে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গির হোসেন খান বলেন, বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ ভবন যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। দীর্ঘ দিন যাবত ভবনটির বড় বড় ইট সুরকি ভেঙ্গে ভেঙ্গে পড়ছে। বার বার তাগিদ দেয়া সত্বেও এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কোন মাথা ব্যাথা নেই। অতিসত্বর পুরাতন ভবন ভেঙ্গে নতুন ভবন করা একান্ত প্রয়োজন।
এ বিষয়ে বার বার যোগাযোগ করার করার চেষ্টা করেও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a