1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৪৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
আখাউড়ায় গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত ৫ আসামী গ্রেফতার। কাপ্তাইয়ে ১০ আর ই ব্যাটালিয়নের আয়োজনে শান্তিচুক্তির ২৫ বছর পূর্তি কেউ শান্তির নামে অশান্তি সৃষ্টি করলে এক বিন্দু ছাড় দেওয়া হবে না -জোন কমান্ডার কাপ্তাইয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপন লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত খুলনা মৎস্য অধিদপ্তরের মাসিক সমন্বয় সভা বেনাপোলে মদ গাঁজা ফেনসিডিলসহ আটক ৩ কাপ্তাইয়ে মাদক আস্থানা পুলিশ ভেঙ্গে দেওয়ায় মাদক সেবীর হামলায় আহত-২ কাপ্তাই বিউবো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছ ২২ জন, পাশের হার ৯৬.৫৯% আখাউড়ায় ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার এবার বৃষ্টিপাত কম হওয়ার দরুণ কাপ্তাই লেকে পানি স্বল্পতায় বিদ্যুৎ উৎপাদন সর্বনিন্মে

গাইবান্ধার সাঘাটায় ২শ’ ৪০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আজও নির্মাণ হয়নি শহীদ মিনার

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার সরকারী-বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আজও শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়নি। ফলে প্রতি বছর একুশে ফেব্রুয়ারীতে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা সম্ভব হয় না এ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। এতে করে ছাত্রছাত্রীরা দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয় ও এর গুরুত্ব অজানাই থেকে যাচ্ছে।

সূত্রমতে, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের স্বাক্ষরিত ২০১৬ সালের ১লা ফেব্রুয়ারী এক দাপ্তরিক আদেশে উল্লেখ করা হয় দেশের যেসব সরকারী-বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শহীদ মিনার নেই, সেগুলোতে অতি দ্রুত শহীদ মিনার নির্মাণ করতে হবে। এছাড়া যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার জরাজির্ণ অবস্থায় রয়েছে সেগুলোও সংস্কার করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে, সাঘাটা উপজেলায় ৫টি কলেজ, ৪৫টি হাই স্কুল, ১৯টি মাদ্রাসা ও ১৭০টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নিয়ে ২শ’ ৫০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার মধ্যে কলেজসহ কয়েকটি হাই স্কুলে শহীদ মিনার থাকলেও দাখিল এবং আলিম মাদ্রাসায় শহীদ মিনার নেই।

অপরদিকে, প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতেও শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক শিক্ষক জানান, শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য বিদ্যালয়ে অর্থের জোগান নেই। তবে সরকারী বরাদ্দ পাওয়া গেলে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে।

ছাত্রছাত্রীরা জানায়, শহীদ মিনার না থাকার কারণে একুশে ফেব্রুয়ারীতে কখনো ফুল দেওয়া সম্ভব হয়নি। সাঘাটা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আহসান হাবীব জানান, শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a