1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
আওয়ামীলীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে কাপ্তাইয়ে ছাত্রলীগের মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ আখাউড়ায় তারাগনের বার্ষিক উরশ বন্ধ কাপ্তাইয়ের চিৎমরম আ’লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ঘরে ঢুকে হত্যা মাদারীপুর পুরান বাজার বড় মসজিদের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠন আওয়ামী লীগ মাদারীপুর ঘটমাঝি ইউনিয়ন শাখার এি–বার্ষিক সম্মেলন কাউখালীর চিরাপাড়া ইউপি নির্বাচনে উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় নৌকা চান চেয়ারম্যান খোকন ঝিনাইদহে জমি সংক্রান্ত জেরে নিহত ১; আহত ১০ কাপ্তাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে যৌথ সভা অনুষ্ঠিত আখাউড়ায় আজ দুপুরে পানিতে ডুবে দুই ভাই-বোনের মৃত্যু বাংলাদেশ ফরায়েজী আন্দোলন জাতীয় কর্মী সম্মেলন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়

জাফর ইকবালের হামলাকারীর সহযোগীদের খুঁজছে পুলিশ

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৬ মার্চ, ২০১৮

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের শতাধিক সক্রিয় এ্যাক্টিভিস্ট ‘ডার্ক ওয়েভের’ মাধ্যমে সুইসাইডাল স্কোয়াড নিয়ন্ত্রণ করছে। তারা দেশের স্বাধীনতার পক্ষে এবং প্রগতিশীল চেতনার বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করার টার্গেট নিয়েছে। এমনকি এই তালিকা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অনলাইনে হুমকি হিসাবে প্রচারও করেছে তারা। ওই তালিকায় শিক্ষাবিদ ও লেখক ড. জাফর ইকবালের নামও ছিল। আরো যাদের নাম রয়েছে, তাদের নিরাপত্তার ব্যাপারে গোয়েন্দারা বিশেষ নজরদারি বাড়িয়েছে। এমনকি এসব বুদ্ধিজীবীরা চাইলে তাদের নিরাপত্তার জন্য গানম্যান নিতে পারবেন বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে, ড. জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারী ফয়জুরের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ মনে করছে আনসার আল ইসলাম এ হামলা চালিয়েছে। যদিও ফয়জুর বারবার বলেছে যে, সে নিজে উদ্ধুদ্ধ হয়ে এই হামলা চালিয়েছে। কিন্তু পুলিশ ও র্যাব ধারণা করছে, ফয়জুর মিথ্যা কথা বলছে। হামলার সময় তার আশেপাশে আরো বেশ কয়েকজন সহযোগী অবস্থান করছিল।

কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) উপ-কমিশনার মহিবুল ইসলাম খান গতকাল ইত্তেফাককে বলেন, ‘হামলার সময় তার আশেপাশে কারা ছিল, তা তদন্ত করা হচ্ছে। ভিডিও ফুটেজ ও ছবি দেখে ২/৩জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।’ আশেপাশে রেকি করা বা ব্যাকআপ দল ছিল কী না-এমন প্রশ্নের জবাবে মুহিবুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা সেসব বিষয়ও খতিয়ে দেখছি।’

হামলার ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অন্য একজন কর্মকর্তা বলেন, ফয়জুর নিজে থেকে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে হামলা চালিয়েছে না কী এটা টার্গেটেড হামলা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। জঙ্গিরা সাধারণত টার্গেট করা ব্যক্তির মাথা ও ঘাড়ে কোপায়, যেন অল্প সময়েই টার্গেট মারা যায়। ড. জাফর ইকবালের ক্ষেত্রে একই ধরনের ঘটনা দেখা গেছে। তবে তিনি সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছেন। আবার জঙ্গি মতাদর্শে বিশ্বাসী কেউ কেউ নিজ সিদ্ধান্তেই এ ধরনের হামলা চালাতে পারে। বিশেষ করে ডার্ক ওয়েভে উদ্ধুদ্ধ হয়ে তার সামনে যখন বেহেস্তে যাওয়ার প্রলোভন দেয়া হয়-ঠিক তখনই সে হামলার সিদ্ধান্ত নেয়। এ কারণে সম্প্রতি একাধিক লোকজনের বদলে ‘লোন উলফ’ বা ‘সিঙ্গেল অ্যাটাকে’র মতো হামলা চালানো শুরু করেছে জঙ্গিরা। জঙ্গিদের হামলার নতুন এই ধরণ খুবই ভয়ঙ্কর। এর সঙ্গে জঙ্গিদের ‘স্লিপার সেল’ হামলার মিল রয়েছে।

সূত্র জানায়, নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের আত্মগোপন থাকা মেজর (চাকরিচ্যূত) জিয়াউল হক ও সেলিমসহ শতাধিক সক্রিয় এ্যাক্টিভিস্টকে গোয়েন্দারা খুঁজছে। এনক্রিপ্টেড মেসেঞ্জার অ্যাপসের মাধ্যমে আনসার আল ইসলামের এ্যাক্টিভিস্টরা তথ্য আদান প্রদান করছে। এরা শতাধিক বুদ্ধিজীবী হত্যার টার্গেট নিয়ে মাঠে কাজ করছে। পুলিশও ইতিমধ্যে আনসার আল ইসলামের আধ্যাত্মিক নেতা জসিমুদ্দিন রাহমানীসহ বেশ কয়েকজন শীর্ষ এ্যাক্টিভিস্টকে গ্রেফতার করেছে। আনসার আল ইসলামের মেজর (চাকরিচ্যূত) জিয়াকে ধরিয়ে দিতে ২০ লাখ টাকা ও সেলিমের জন্য ৫ লাখ টাকা পুরষ্কার ঘোষণা করা আছে। হামলাকারী ফয়জুর রহমান আনসার আল ইসলামের মতাদর্শের বলে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। তবে এর আগে ফয়জুরের পরিবারের সদস্যরা কুয়েতের আহলে হাদিসের সালাফি মতাদর্শে বিশ্বাসী বলে তথ্য পাওয়া যায়। আহলে হাদিস বাংলাদেশে মূলত জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) নামের জঙ্গি সংগঠনটি পরিচালনা করত। ফয়জুর সেই জেএমবি থেকে পরবর্তীতে আনসার আল ইসলামে যোগ দেয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a