1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : News 52 Bangla : Nurul Huda News 52 Bangla
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ :
কাপ্তাইয়ে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালন নারী উন্নয়ন ক্ষমতায়ন যত বাড়বে দেশ ততো এগিয়ে যাবে, কাপ্তাইয়ে জেন্ডার উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা রাঙামাটি জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও কাপ্তাইয়ের মুনতাসির জাহান নির্বাচিত কাপ্তাইয়ে গাজা ও মদ বহনকালে যুবক আটক শেখ রাসেল দিবসে কাপ্তাইয়ে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাফ জয়ী অধিনায়কের সংবর্ধনা ও আর্থিক অনুদান সাতক্ষীরায় সাফ চ্যাম্পিয়ন অধিনায়ককে অভ্যর্থনা কাপ্তাইয়ের রাইখালী ১কোটি ৭৭লাখ টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর (উশৈসিং) সকল জাতি,ধর্ম,বর্ণ গোত্রের মধ্যে সহাবস্থান, কাপ্তাই উপজেলায় সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত কাপ্তাইয়ে শিলছড়িতে সিএনজি -চাঁদের গাড়ি মুখামুখি সংর্ঘষ আহত ৪

পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় চরম ভোগান্তিতে ঝিনাইদহের চানপাড়াবাসী

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০
মনিরুজ্জামান মনির, (শৈলকুপা) ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-
ঝিনাইদহ পৌরসভার চানপাড়া নামক এলাকায় বৃষ্টির পানি হলেই জমে যায় হাটু পানি। পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় স্থানীয় বাসিন্দাদের পোহাতে হয় চরম দুর্ভোগ।
জানাগেছে, ঝিনাইদহ পৌরএলাকার ৮ নং ওয়ার্ডের আরাপপুর চানপাড়ায় সামান্য বৃষ্টি হলেই ১০ বিঘা জমির ফসলসহ স্থানীয় বাড়িঘরে জমে যায় হাটু পানি। পানি নিস্কাশনের সঠিক কোন ব্যবস্থা না থাকায় প্রতি বছরই তাদের এই সমস্যায় পড়তে হয়। স্থানীয় ভাবে প্রতিবছর বৃষ্টির মৌসুম এলে এলাকার বাসিন্দাদের কাছ থেকে টাকা তুলে অস্থায়ী পানি নিস্কাশন করে থাকেন তারা।
এতে সাময়িক সমস্যার সমাধান হলেও স্থায়ী সমাধান জরুরী বলে এই এলাকার বাসিন্দারা মনে করেন। সে জন্য তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দ্রুত পানি নিস্কাশনের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। চানপাড়াবাসীরা এও বলেন,এ পাড়াতে একটি গোরস্হান করা হয়েছে। যা আরাপপুর, খাজুরা,ও চান পাড়ার মানুষ মারা গেলে এখানে কবরস্ত করা হয়। কিন্তু এর প্রধান রাস্তায় সামান্য বৃষ্টি হলেই হাটু পানি জমে থাকে। যার ফলে মানুষ মারা গেলে  দাফন কাজ করতেও অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় ।
এব্যপারে ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আমি জানি।ওখানে পানি নিষ্কাশনের স্থায়ী ব্যবস্থা করা না গেলেও প্রতিবছরই অস্থায়ী ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু নতুন নতুন বাড়ি ঘর করার কারণে পুনরায় নিষ্কাশন ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, চানপাড়াতে স্থায়ীভাবে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা করতে বড় আকারের বাজেট প্রয়োজন, বিষয়টি আমি মেয়র মহোদয় কে জানিয়েছি।
বিষয়টি নিয়ে ভুক্তভোগী স্থায়ী বাসিন্দারা বলেন, বহু বছর ধরে এ এলাকায় বসবাস করলেও পানি নিষ্কাশনের কোন সু-ব্যবস্থা করার উদ্যোগ কেউ গ্রহন করেনি।
স্থানীয় জনপ্রতিনিধির কাছে বললেও তিনি এবিষয়ে কোন গুরুত্ব দেয়না। এলাকাবাসী বিষয়টি নিয়ে হতাশার সাথে খুবই দুঃখ প্রকাশ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
2019 All rights reserved by |Dainik Donet Bangladesh| Design and Developed by- News 52 Bangla Team.
Theme Customized BY News52Bamg;a